এশিয়ান কুশীলবেরা হলিউডের পাশাপাশি জনপ্রিয় হচ্ছেন অন্যান্য দেশের নির্মাণেও। ভারতের অনুপম ত্রিপাঠী যেমন কোরিয়ান 'স্কুইড গেম' এর সুবাদে রাতারাতি হয়ে গেলেন গ্লোবাল স্টার। এরকম হচ্ছে আরো অনেকের ক্ষেত্রেও। বিশ্ব-রঙ্গমঞ্চের অবয়ব ক্রমশই সংকুচিত হচ্ছে৷ মঞ্চের সংকীর্ণ এ অবয়বে নিয়মিত তাই স্থান করে নিচ্ছে গুণী এশিয়ান শিল্পীরা...

গোটা বিশ্ব এখন এক মফস্বল শহর। হাত বাড়ালেই মুহুর্তের মধ্যে হাজির বিশ্বের যেকোনো প্রান্তের যা কিছু৷ বাদ নেই বিনোদনও। পৃথিবীর তাবৎ বিনোদন আজ হাতের আঙুল-সমান দূরত্বে। নেটফ্লিক্স, অ্যামাজন কিংবা ডিজনি... সবই রূপান্তরিত মফস্বল শহরের আটপৌরে বায়োস্কোপে। নির্মাণেও আজ ঘুচে যাচ্ছে কাঁটাতার, উবে যাচ্ছে সীমান্ত। অভিনেতাদেরও আজ কোনো পাসপোর্ট নেই যেন। এক মহাদেশের মানুষ দোর্দণ্ডপ্রতাপ দেখাচ্ছেন অন্য মহাদেশের নির্মাণে। সবাই মিলেই আজ বড়সড় এক পরিবার। বড়সড় এক গোষ্ঠী। 

তবুও বৃহত্তর পরিবারের ভেতরেও নিজ নিজ ক্ষুদ্র পরিবার নিয়ে খানিকটা স্বজনপ্রীতি থাকেই। স্বজনপ্রীতির সে নিয়ম মেনেই আজ তাই কথাবার্তা এমন দশ কুশীলব নিয়ে, যারা এশিয়া মহাদেশ থেকে পাড়ি দিয়েছেন হাজার হাজার মাইল দূরত্বের হলিউডে। সেখানে গিয়ে শুধু বসে থাকেননি। সদর্পে হাজির হয়েছেন পর্দায়। দেখিয়েছেন চমৎকারিত্ব। হয়েছেন জনপ্রিয়। 

১. সিমু লিউ

মার্ভেল যখন 'প্রথম এশিয়ান সুপারহিরো' নিয়ে আসার ঘোষণা দিয়েছিলো, তখন থেকেই একটা চাপা জল্পনাকল্পনা ছিলো- কে হবেন সেই সুপারহিরো? 'শাং-চি' মুক্তি পাওয়ার পর সে জল্পনাকল্পনার অবসান হয়েছে। 'সিমু লিউ' চাইনিজ সুপারহিরো হয়ে সবার মন তো জয় করেছেনই, সে সাথে বিশ্বব্যাপী গড়েছেন বিশাল বড় এক ফ্যানবেজ। যদিও এই সিনেমার আগে তিনি সিবিসি টেলিভিশনের অ্যাওয়ার্ড উইনিং সিটকম 'কিম কনভেনিয়েন্স'এ দুর্দান্ত অভিনয় করে বেশ খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। 

সিমু লিউ

২. প্রিয়াংকা চোপড়া জোনাস

উপমহাদেশের অডিয়েন্সের কাছে প্রিয়াংকা চোপড়ার পরিচয় আলাদা করে দিতে হবে না মোটেও। এ পর্যন্ত অজস্র সব বলিউডি সিনেমাতে যে অভিনয় তিনি করেছেন, তা অনবদ্য। গুণী এই অভিনেত্রী বলিউডের পর এখন কাঁপাচ্ছেন হলিউডও। বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় 'ম্যাট্রিক্স' ফ্রাঞ্চাইজির আগামী কিস্তিতে দেখা যাবে তাকে। পাশাপাশি বলিউডের বেশ কিছু সিনেমাতেও সমান তালে অভিনয় করে যাচ্ছেন তিনি। 

প্রিয়াংকা চোপড়া জোনাস

৩. কুনাল নায়ার

যারা 'বিগ ব্যাং থিওরি' দেখেছেন, তাদের কাছে আলাদা করে কুনাল নায়ারের ঠিকুজিকোষ্ঠী-বৃত্তান্ত দিতে হবেনা মোটেও। ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে তিনি বৈশ্বিক গ্রামের বাসিন্দা। 'বিগ ব্যাং থিওরি'র পাশাপাশি তিনি যুক্ত ছিলেন অ্যানিমেশন সিরিজ 'আইস এজ' এ। এই নির্মাণে কন্ঠ দিয়েছিলেন তিনি। এছাড়াও ডঃ ক্যাবি, ট্রলস, দ্য স্ক্রিবলার...জনপ্রিয় সব নির্মাণে একের পর এক কাজ করে গিয়েছেন তিনি। পেয়েছেন বিশ্বজোড়া সুনাম।  

কুনাল নায়ার

৪. মিন্ডি কালিং

মিন্ডি কালিং অভিনেত্রী, স্ক্রিন রাইটার, প্রোডিউসার। এবং এখানেই শেষ না। তিনি একজন ভয়েজ ওভার আর্টিস্টও! একাধিকবার 'প্রাইমটাইম এমি অ্যাওয়ার্ডস' এর জন্যে মনোনীত হওয়া এ অভিনেত্রী এনবিসি'র সিটকম 'দ্য অফিস' এর সুবাদে যে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন, তা বজায় আছে আজও। কমেনি লেশমাত্রও।

মিন্ডি কালিং 

৫. লানা কন্ডর

ভিয়েতনাম থেকে আসা এই অভিনেত্রী হলিউডে যাত্রা শুরু করেছিলেন বড়সড় এক চমক দিয়ে। জনপ্রিয় সুপারহিরো ফিল্ম 'এক্স মেনঃ অ্যাপোক্যালিপ্স' দিয়ে যাত্রা শুরু তার। এরপর জনপ্রিয়তা পেয়েছেন 'টু অল দ্য বয়েজ' সিরিজ এ 'লারা জিন' চরিত্রে অভিনয় করে। দুর্দান্ত সব চরিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক অ্যাওয়ার্ডের সংখ্যাও কম নেই তার ঝুলিতে। 

লানা কন্ডর

৬. দেব প্যাটেল 

ড্যানি বয়েলের 'স্লামডগ মিলিয়নিয়ার' এর 'জামাল' চরিত্র দিয়ে প্রথমবার আন্তর্জাতিক সংস্কৃতিমাধ্যমের নজরে আসেন দেব প্যাটেল। এরপর অভিনয় করেছেন আরেক ব্লকবাস্টার 'লায়ন' সিনেমাতে। 'দ্য বেস্ট এক্সটিক ম্যারিগোল্ড হোটেল', 'দ্য ম্যান হু নিউ ইনফিনিটি' সিনেমাগুলোতেও ছিলেন অনবদ্য। এসবের মিলিত ফলাফলে দেব প্যাটেলের 'গ্লোবাল স্ট্যাটাস' খুব অল্পবয়সেই তাই আশ্চর্যরকমের উজ্জ্বল। 

দেব প্যাটেল

৭. নাওমি স্কট

ডিজনির মিউজিক্যাল লাইভ-অ্যাকশন ফ্যান্টাসি ফিল্ম 'আলাদিন' এ 'প্রিন্সেস জেসমিন' চরিত্রে অভিনয় করার সুবাদে নাওমি স্কট পেয়েছিলেন গ্লোবাল রিকগনিশন। তবে এটাই তার প্রথম আন্তর্জাতিক সিনেমা না। এই সিনেমার আগে অভিনয় করেছিলেন সুপারহিরো ফিল্ম 'পাওয়ার রেঞ্জারস' এ। পরবর্তীতে 'চার্লিস অ্যাঞ্জেলস' এ অভিনয় করে তিনি আরেক দফা জনপ্রিয় হন। সিনেমার পাশাপাশি বেশ কিছু টিভি সিরিজেও অভিনয় করেছেন 'আলাদিন'খ্যাত এ অভিনেত্রী। 

নাওমি স্কট

​​

৮. ফ্রিদা পিন্টো

মুম্বাইয়ে জন্ম নেয়া এ অভিনেত্রী ক্যারিয়ারের প্রথম সিনেমা দিয়েই তাক লাগিয়েছিলেন সবাইকে। সিনেমার নাম- স্লামডগ মিলিয়েনিয়ার। এরপর অভিনয় করেছেন দারুণ জনপ্রিয় 'রাইজ অব দ্য প্ল্যানেট অফ দ্য এপস'এও। হিলবিলি এলিজি কিংবা মোগলিতেও করেছেন অনবদ্য অভিনয়। সবকিছুর মিলিত ফলশ্রুতিতে গ্লোবালি বেশ জনপ্রিয় এক নাম ফ্রিদা পিন্টো।

ফ্রিদা পিন্টো

৯. রিচা মুরজানি

'নেভার হ্যাভ আই এভার' সিরিজে 'কমলা' রোলে তার অভিনয় তাকে দিয়েছিলো বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয়তা। এই সিরিজের পরে রিচা অভিনয় করেছে আরো অজস্র সিনেমা সিরিজে৷ 'দ্য মিন্ডি প্রজেক্ট' কিংবা 'এনসিআইএসঃ লস এঞ্জেলস'... এসব সিরিজেও দারুণ অভিনয় দিয়ে আলাদাভাবে নজর কেড়েছেন রিচা। রিচার পাশাপাশি রিচার বাবা-মা'ও যুক্ত শিল্প-সংস্কৃতির সাথে। বলিউডে একটি ব্যান্ডের সাথেও যুক্ত আছেন তারা।

রিচা মুরজানি

১০. অকাফিনা

বিশ্বব্যাপী তুমুল জনপ্রিয়তা অকাফিনার। চাইনিজ-আমেরিকান এ অভিনেত্রী অভিনয় করেছেন শাং-চি, ক্রেজি রিচ, জুমাঞ্জি, ওশান-এইট সহ জনপ্রিয় সব নির্মাণে। 'দ্য ফেয়ারওয়েল' এ দুর্দান্ত অভিনয়ের জন্যে প্রথম এশিয়ান নারী হিসেবে পেয়েছেন 'গোল্ডেন গ্লোব' অ্যাওয়ার্ড। এই অভিনেত্রীর আসল নাম যদিও নোরা লাম, তবে তিনি 'অকাফিনা' নামেই বেশি জনপ্রিয়।।

অকাফিনা

এশিয়ান কুশীলবেরা হলিউডের পাশাপাশি জনপ্রিয় হচ্ছেন অন্যান্য দেশের নির্মাণেও। ভারতের অনুপম ত্রিপাঠী যেমন কোরিয়ান 'স্কুইড গেম' এর সুবাদে রাতারাতি হয়ে গেলেন গ্লোবাল স্টার। এরকম হচ্ছে আরো অনেকের ক্ষেত্রেও। পৃথিবী ক্রমশই সংকুচিত হচ্ছে৷ পৃথিবীর সংকীর্ণ এ অবয়বে নিয়মিত তাই স্থান করে নিচ্ছে এশিয়ান কুশীলবেরা। প্রত্যাশা তাই এটাই, এ ধারা সামনেও অব্যাহত থাকুক। এ মহাদেশের ভালো ভালো শিল্পীরা বিশ্বমঞ্চে কাজ করার সুযোগ পাক। ভৌগোলিক বৈষম্য-বিভেদ ঘুচুক। তাহলেই মঙ্গল। 


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা