অভিনেতা, ব্যবসায়ী ও সাবেক ওয়ার্ড কমিশনার মনোয়ার হোসেন ডিপজলের নতুন ৪টি সিনেমা আসছে। এরমধ্যে দুটি সিনেমা হচ্ছে 'কোটি টাকার কাবিন' ও 'চাচ্চু'-র সিক্যুয়াল। অপরদুটি সিনেমার নাম এখনো চূড়ান্ত হয়নি। নিজের ফেসবুক পেজ থেকে একথা জানান তিনি।

অভিনেতা, ব্যবসায়ী ও সাবেক ওয়ার্ড কমিশনার মনোয়ার হোসেন ডিপজলের নতুন ৪টি সিনেমা আসছে। এরমধ্যে দুটি সিনেমা হচ্ছে 'কোটি টাকার কাবিন' ও 'চাচ্চু'-র সিক্যুয়াল। অপরদুটি সিনেমার নাম এখনো চূড়ান্ত হয়নি। নিজের ফেসবুক পেজ থেকে একথা জানান তিনি। 

 

ছবি নির্মাণের জন্য চুক্তিবদ্ধ করেছেন পরিচালক মনতাজুর রহমান আকবরকে। ২০০৬ সালে মুক্তি পাওয়া ‘কোটি টাকার কাবিন’ ও ‘চাচ্চু’ সিনেমা দুটিতে প্রযোজনার পাশাপাশি অভিনয়ও করেছিলেন ডিপজল। জুটি হিসেবে মজবুত অবস্থান লাভ করেন শাকিব-অপু এ দুটি সিনেমার মাধ্যমেই। অন্যদিকে, ‘চাচ্চু’ সিনেমায় অভিনয় করেই দর্শকপ্রিয় হন দিঘী।

সুপারহিট সিনেমা 'চাচ্চু'র পোস্টার

নিজের ফেসবুক পেইজে ডিপজল জানান, “সামনের লটেই করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আপনাদের দোয়াতে ৪ টা ছবির কাজ শুরু করবো। ইতোমধ্যে সিনেমা ৪ টির স্ক্রিপ্ট প্রস্তুত করা হয়েছে”। ছবিতে কারা কারা থাকছেন এ ব্যাপারে তিনি আভাস দিয়ে বলেন,”৪ টা ছবির মধ্যে প্রথম দুইটা ছবি হচ্ছে 'কোটি টাকার কাবিন' ও 'চাচ্চু'র সিক্যুয়াল আর বাকি ২টা ছবির নাম এখনও ঠিক হয়নি। ৪টা ছবিতেই থাকবে নতুন নায়ক-নায়িকা”।

কেন স্যিকুয়াল করছেন এই ব্যাপারেও আলোকপাত করেন তিনি,”সিনেমার দুঃসময়ে ‘কোটি টাকার কাবিন’ ও ‘চাচ্চু’ সিনেমা দুটি চলচ্চিত্রের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছিল। অশ্লীল যুগের অবসান ঘটাতে ভূমিকা রাখে। তাই আমার ধারাবাহিক সিনেমা নির্মাণের পরিকল্পনায় সিনেমা দুটির সিক্যুয়াল নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছি।সবাই দোয়া করবেন পাশে থাকবেন”।

ডিপজল প্রযোজিত এফ আই মানিক পরিচালিত সুপার-ডুপার হিট সিনেমা ‘কোটি টাকার কাবিন’ ও ‘চাচ্চু’ মুক্তি পায় ২০০৬ সালে। বর্তমানে একের পর এক সিনেমা নির্মাণ করে যাচ্ছেন মনোয়ার হোসেন ডিপজল। এক সময়ের ভয়ংকর খল অভিনেতা ডিপজল এখন পুরোদস্তুর প্রযোজক। গত আড়াই মাসে তিনটি নতুন সিনেমার কাজ শেষ করেছেন তিনি। এগুলো হলো—‘অমানুষ হলো মানুষ’, ‘বাংলার হারকিউলিস’ এবং ‘যেমন জামাই তেমন বউ’। এর আগে ২০১৯ সালে ‘সৌভাগ্য’, ‘এক কোটি টাকা’ ও ‘এদেশ তোমার আমার’সহ একসঙ্গে চারটি ছবি নির্মাণের ঘোষণা দেন তিনি। যার একটিও এখনো মুক্তি পায়নি।


ট্যাগঃ

শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা