১৯৯৪ থেকে ২০০৪- ১০ বছরে ১০টি সিজন নিয়ে আমেরিকান সিটকম ফ্রেন্ডস দোর্দন্ড প্রতাপে টিকে আছে আজও। প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক নতুন ভক্ত যোগ করা এই সিরিজের একটি অনন্য দিক। কখনো কি জানতে ইচ্ছে করেছে, লম্বা সময় ধরে চলা টিভি সিরিজের তারকা নির্মাতারা সিরিজ শেষ হয়ে যাওয়ার পরও ঠিক কতটাকা আয় করেন? আজকে সেটি নিয়েই আলাপ চলবে!

ফ্রেন্ডস টিভি সিরিজটি নিয়ে নতুন কিছু বলার নেই। যারা দেখেছেন, তারা বাকি জীবন নিজের ও নিজেদের বন্ধুদের সাথে মিল খুঁজে পেয়ে এই শো-কে আরো বেশি ভালোবেসেছেন। আর যারা দেখেননি তারা অন্তত সোসাল মিডিয়ার কল্যানে এই শো-র কোটেশন বা মিমস অবশ্যই দেখে থাকবেন। ১৯৯৪ থেকে ২০০৪- ১০ বছরে ১০টি সিজন ফ্রেন্ডস টিভি সিরিজের। এখনো এই সিরিজ দোর্দন্ড প্রতাপে টিকে আছে ভক্তদের মাঝে-প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক নতুন ভক্ত যোগ করা এই সিরিজের একটি অনন্য দিক। কখনো কি জানতে ইচ্ছে করেছে, লম্বা সময় ধরে চলা টিভি সিরিজের তারকারা আর নির্মাতারা সিরিজ শেষ হয়ে যাওয়ার পরও ঠিক কতটাকা আয় করেন? আজকে সেটি নিয়েই আলাপ চলবে! 

‘ইনসমনিয়া ক্যাফে’ -’সিক্স অফ ওয়ান’- ‘ফ্রেন্ডস লাইক আস’ থেকে ‘ফ্রেন্ডস’: ডেভিড ক্রেইন আর মার্তা কফম্যান প্রথমে ৭ পৃষ্ঠার একটি চিত্রনাট্য নিয়ে আমেরিকান টেলিভিশন নেটওয়ার্ক এনবিসি-র কাছে এই টিভি সিরিজ পিচ করে। বাকিটা ইতিহাস। ৬২টি প্রাইমটাইম এমি নমিনেশন প্রাপ্ত ফ্রেন্ডস মুক্তির সময় থেকে আজ পর্যন্ত- ঈর্ষণীয় সাফল্য ধারাবাহিক ভাবে অব্যহত রেখেছে এই সিরিজ। কিন্ত টিভি সিরিজ শেষ হয়ে গেলেও কি এর সাথে সংশ্লিষ্টরা আয় করেন? করলেও ঠিক কত? ২৬ বছর পরেও আয়ের পরিমাণ জানলে আপনার চোখ চড়কগাছ হতে বাধ্য! 

ফ্রেন্ডস সিরিজের কেন্দ্রীয় চরিত্রগুলো

ইউএসএ টুডে-র একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, ফ্রেন্ডসের প্রোডাকশন হাউজ ওয়ার্নার ব্রাদারস সব মিলিয়ে ১ বিলিয়ন ডলার বা সাড়ে আট হাজার কোটি টাকার আয় করে প্রতিবছর! পুরো আয়ের ২% চলে যায় ফ্রেন্ডসের প্রধান শিল্পীদের কাছে, যেটি ২ মিলিয়ন ডলার বা ১৭ কোটি টাকা! অর্থাৎ, ২৬ বছর আগে রিলিজ হওয়া শো এর জন্য র‍্যাচেল, রস, মনিকা, জোয়ি, ফিবি আর চ্যান্ডলাররা এখনও প্রতি বছর পান ১৭ কোটি টাকা!

ডেভিড ক্রেইন আর মার্তা কফম্যান নির্মিত ‘ফ্রেন্ডস’ একটি আমেরিকান টেলিভিশন সিটকম। ১৯৯৪ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত এনবিসি নেটওয়ার্কে তুমুল জনপ্রিয় এই টেলিভিশন-সিরিজের ১০টি সিজন সম্প্রচারিত হয়। নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে ৬ জন বন্ধুর দৈনন্দিন জীবনের রোজনামচাই হচ্ছে ফ্রেন্ডসের বিষয়বস্ত।  জোয়ান থেকে বুড়ো, এখনো অনেকে ফ্রেন্ডস বলতে পাগল। 


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা