বাংলাদেশী কন্টেন্টও জড়িয়েছে হইচইয়ের সঙ্গে, থ্রিলার লেখক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত 'রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি' বা আশফাক নিপুণের 'মহানগর'ও এবছর রিলিজ পাবে হইচইয়ে...

ভারতীয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচই কলকাতার বাংলাভাষী দর্শকদের পাশাপাশি খুব দ্রুতই জায়গা করে নিয়েছে বাংলাদেশী দর্শকদের মধ্যেও। বিশেষ করে চঞ্চল চৌধুরীর অভিনীত তাকদীর সিরিজটি তো তুমুল প্রশংসা কুড়িয়েছে। গতকাল হইচই ঘোষণা করেছে তাদের ২০২১ সালের লাইনআপ, অর্থাৎ কি কি সিরিজ বা সিনেমা এই অ্যাপে মুক্তি পাবে এবছর। সেখানে ডাকসাইটে তারকাদের সিনেমা আছে, আছে সত্যি ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত সিনেমা ও সিরিজ, আছে আনকোরা সিরিজ, আছে পুরনো সিরিজের নতুন সিজনও। বাংলাদেশী কন্টেন্টও জড়িয়েছে হইচইয়ের সঙ্গে, থ্রিলার লেখক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত 'রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি' বা আশফাক নিপুণের 'মহানগর'ও এবছর রিলিজ পাবে হইচইয়ে। 

রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি: এক ফ্রেমে তারকার সমাবেশ পরিচালনাতেও এক হেভিওয়েট তারকা সৃজিত মুখার্জী। এক ছাদের নীচে রাহুল বোস, অনির্বাণ ভট্টাচার্য, অনির্বাণ চক্রবর্তী, সঙ্গে বাংলাদেশের আজমেরি হক বাঁধন, তিনিই অভিনয় করছেন মূখ্য চরিত্রে। পহেলা বৈশাখে মুক্তি পাবে বহুল প্রতীক্ষিত এই সিরিজটি। 

মহানগর: সত্যজিৎ রায়ের ছবি ভাবলে ভুল করবেন, এটি বানিয়েছেন আশফাক নিপুণ। তিনজন মানুষ, দু'জন পুলিশ অফিসারের জীবন জড়িয়ে যায় একটি ঘটনায়। তার ধাক্কায় বদলে যায় তাদের বিশ্বাস। এই সিরিজ দিয়েই হইচই-এ পা রাখছেন মোশারফ করিম, তার সঙ্গে আছেন বাংলাদেশের ওটিটি-কিং খ্যাত শ্যামল মাওলা। 

ম্যারাডোনার জুতো: মৈনাক ভৌমিকের রোম্যান্টিক কমেডি সিরিজ। উত্তর কলকাতার দুই পরিবারের দ্বন্দ্ব, ফুটবল নিয়ে রেষারেষি আরও অনেক কিছু উঠে আসবে তাতে। গল্পের প্রয়োজনে উঠে আসবেন কিংবদন্তি ফুটবলার ম্যারাডোনাও।

রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি

দু’জনে: নাম শুনলে মনে হবে রোমান্টিক কোন গল্প, অথচ এটি থ্রিলার। এই সিরিজ দিয়েই বড় পর্দার জনপ্রিয় জুটি সোহম এবং শ্রাবন্তী পা রাখছেন ওয়েব দুনিয়ায়।

মোহমায়া: কমলেশ্বর মুখার্জী পরিচালিত এই সিরিজ এমন এক তরুণের গল্প বলবে, যে অল্প বয়েসে মাকে হারিয়েছে। সেই ছেলেই বড় হয়ে মানসিক বিকারগ্রস্ত হয়ে পড়ে। মোহের টানে জড়িয়ে পড়ে বন্ধুর মায়ের সঙ্গে। অনন্যা চট্টোপাধ্যায়, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, নীল মুখোপাধ্যায়ের মতো তারকারা সিরিজের প্রতি পরতে ছড়িয়ে দেবেন মোহ আর মায়া।

শ্রীকান্ত: কৈশোরের সারল্য সরিয়ে তারুণ্যের আত্মপ্রকাশ। শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের শ্রীকান্ত তার সময়েও সমসাময়িক, এই সময়েও। প্রতি মুহূর্তে তাকে নিজের অস্তিত্বের সংকটে ভুগতে হয়। লড়াই চালাতে হয় নিজের মন আর সমাজের সঙ্গে। মূল চরিত্রে অভিনয় করবেন নতুন অভিনেতা ঋষভ বসু।

মন্দার: অনির্বাণ ভট্টাচার্যের পরিচালনায় হাতেখড়ি হচ্ছে এই কন্টেন্ট দিয়ে। শেক্সপিয়ারের ম্যাকবেথ অবলম্বনে গল্প ফেঁদেছেন অনির্বাণ, নামভূমিকাতেও দেখা মিলবে তার। সঙ্গী সোহিনী সরকার, দেবাশিস মণ্ডল। 

মৌচাক: হইচই- এর হাত ধরে ওয়েবে আসছেন ছোটপর্দার চুম্বক মনামী ঘোষ। ঘরের বৌ সারাক্ষণ বাড়িবন্দি। কী অবস্থা হয় তার? ডার্ক কমেডি জনারের এই সিরিজ দেখাবে সেটাই।

মহানগর

মার্ডার ইন দ্য হিলস: বিরতি দিয়ে ফিরছেন অঞ্জন দত্ত। সেইসঙ্গে ফিরছে তার কৈশোর, তারুণ্য, দার্জিলিং। নব্বইয়ের দশকের এক তারকার মৃত্যু এই সিরিজের বিষয়বস্তু। 

সেই যে হলুদ পাখি ২: আসছে এই মিউজিক্যাল ড্রামার ২য় পর্ব। প্রথম পর্ব শেষ হয়েছিল বৈদেহীর মৃত্যু দিয়ে। অভিনয়ে আছেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, ত্রিধা চৌধুরী।

পাপ ২: আবার পাপ করতে ফিরছেন পূজা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাহুল বন্দ্যোপাধ্যায়। এবারের সিজনেও থাকবে মৃত্যুর মিছিল। কেউ জানে না, কীভাবে পরিবারের একের পর এক সদস্য মারা যাবেন হঠাৎ করে।

একেনবাবু সিজন ৫: অনির্বাণ চক্রবর্তী ‘একেনবাবু’র ভূমিকায় থাকবেন আগের মতোই। নতুন রহস্য নিয়ে ফিরছে সিজন ফাইভ।

ব্যোমকেশ সিজন ৭: আরও একবার পর্দায় হাজির ব্যোমকেশ বক্সী। শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে আবারও একজোট অনির্বাণ ভট্টাচার্য, সুপ্রভাত দাস, ঋদ্ধিমা ঘোষ।

ট্যাংরা ব্লু’জ ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার: ব্যর্থ সঙ্গীতশিল্পীর গল্প এবং ট্যাংরা নামক স্থানের বিস্মৃত এক ব্যান্ডের নবজন্ম এই গল্পের কেন্দ্রে। কলকাতার সর্বাধিক কুখ্যাত বস্তি উঠে আসবে ছবিতে। ছবিতে এই প্রথম জুটি বাঁধছেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় ও মধুমিতা সরকার।

প্রেম টেম ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার: আজকের প্রজন্মের প্রেম দেখিয়েছেন অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়। সঙ্গে সমাজ বদলের ডাক। লিভ ইন রিলেশনশিপ, একাধিক প্রেম টেম। 

কাকাবাবুর প্রত্যাবর্তন ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার: ‘কাকাবাবু’ রাজা রায়চৌধুরী, ভাইপো সন্তু এবার আফ্রিকার বিপজ্জনক অঞ্চলে। সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে এটি সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘কাকাবাবু’ সিরিজের তৃতীয় ছবি।

সাইকো ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার: অনির্বাণ ভট্টাচার্য এবং পরিচালক বিরসা দাশগুপ্ত এক সাইকোপ্যাথকে খুঁজছেন। তিনি কি অনির্বাণ চক্রবর্তী? জানা যাবে ‘সাইকো’ ছবিতে।

গোলন্দাজ ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার: ভারতের ফুটবলের জনক নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারীর জীবন উঠে আসছে এই ছবিতে। মুখ্য ভূমিকায় পশ্চিমবঙ্গের সাংসদ-তারকা দেব। পরিচালনায় ধ্রুব বন্দ্যোপাধ্যায়।


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা