শাহরুখ-অ্যাটলির সিনেমা নিয়ে সবচেয়ে বড় গুজব, সিনেমার এক সাব-প্লটের সাথে নাকি নেটফ্লিক্সের বিখ্যাত টিভি সিরিজ 'মানি হাইস্ট' এর তীব্র মিল! সিনেমার এক বিশেষ ব্যাঙ্ক ডাকাতির পুরোটাই নাকি 'মানি হাইস্ট' এর অনুপ্রেরণায় নির্মিত হবে...

বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের ফিল্মোগ্রাফি থেকে একটা বিষয় স্পষ্ট, ২০১৪ সালে 'হ্যাপি নিউ ইয়ার' এর পর থেকে তার আর কোনো সুপারহিট সিনেমা নেই। এই সিনেমার পরবর্তী বছরগুলোতে যেসব সিনেমা তিনি করেছেন, তার কোনোটি হয়েছে ফ্লপ, কোনোটি বা সেমি-ফ্লপ! শাহরুখ খানের শেষ দুই সিনেমার ক্ষেত্রে সে পরিসংখ্যান আরো ভয়াবহ। দুটিই ফ্লপ। এবং শেষ সিনেমা মুক্তি পাওয়ার পরে পেরিয়েও গেছে টানা তিনটি বছর। এরকম এক সময়ে এসে শাহরুখ খান যখন নতুন সিনেমার কাজ শুরু করেন, সেই সিনেমা যতটা না তাঁর ভক্তদের জন্যে গুরুত্বপূর্ণ, তার চেয়েও বেশি গুরুত্বপূর্ণ তাঁর নিজের জন্যে। ভালো গল্প, ভালো এক্সিকিউশন না হলে আজকাল যে কোনোভাবেই আলোচনার মধ্যমণি হয়ে টিকে থাকা যায় না, বিশাল বড় ফ্যানবেইজ এবং স্টারডম যে দিনশেষে সিনেমার উৎকর্ষতার মানদণ্ড হতে পারে না...তার সবচেয়ে বড় কেস স্টাডিই হয়তো বলিউডের এই সুপারস্টার‍! 

তবে এসবের মধ্যেও জানা যাচ্ছে, শাহরুখ খান সিনেমার পর্দায় ফিরছেন আবার৷ শুধু ফেরা না, বেশ ঢাকঢোল পিটিয়েই মহাসমারোহে ফিরছেন। বিখ্যাত তামিল পরিচালক অ্যাটলির সিনেমায় কাজ শুরু করেছেন তিনি। অ্যাটলির সিনেমাগুলো যারা বিগত সময়গুলোতে অনুসরণ করেছেন, তারা জানেন, তার সিনেমাগুলো বানিজ্যিক মালমশলায় পুরোপুরি ঠাসা থাকে। এবং তার নির্মিত সিনেমাগুলো বেশ জনপ্রিয়ও হয়! রাজা রানী, মার্সাল, থেরি... এই বক্তব্যের সপক্ষেই সাক্ষ্য দেবে। এরকম এক সুপারস্টার নির্মাতার সাথে শাহরুখ খান যুক্ত হওয়ায় ভক্তকুলের প্রত্যাশা তাই মনুমেন্ট ছুঁইছুঁই! জানা গিয়েছে, সিনেমায় কিং খানের সাথে থাকবেন সাউথের জনপ্রিয় দুই অভিনেত্রী- প্রিয়ামনি এবং নয়নতারাও। গুজবের এখানেই শেষ না। চাউর হয়েছে, এই সিনেমায় সাউথ ইন্ডিয়ান আরো কিছু সুপারস্টারকেও দেখা যেতে পারে। তাছাড়া, বলিউডের সুনীল গ্রোভারও অভিনয় করবেন এখানে। সম্প্রতি সিনেমাটির শুটিংও শুরু হয়েছে পুনে'তে৷ ধারণা করা হচ্ছে, টানা ১৮০ দিন শুটিং হবে শাহরুখের নতুন এই সিনেমার! 

অ্যাটলি'র সাথে জুটি বাঁধছেন শাহরুখ খান! 

তবে শাহরুখ-অ্যাটলির সিনেমা নিয়ে সবচেয়ে বড় গুজব, সিনেমার এক সাব-প্লটের সাথে নাকি নেটফ্লিক্সের বিখ্যাত টিভি সিরিজ 'মানি হাইস্ট' এর তীব্র মিল!  এমনিতেও এ মাসের তিন তারিখে মুক্তি পেয়েছে 'মানি হাইস্ট' এর সর্বশেষ সিজনের প্রথম কিস্তি! মুক্তির আগে থেকে এবং মুক্তির পরেও এখন পর্যন্ত এ সিরিজটিই টক অফ দ্য ওয়ার্ল্ড! এই বিশেষ সিরিজ নিয়ে জোরসে চলছে তর্ক-বিতর্ক। এরকমই এক উত্তুঙ্গ সময়ে এই গুজব তাই সিরিজের পাশাপাশি সিনেমাটিকেও এনেছে পাদপ্রদীপের আলোয়। শোনা যাচ্ছে, সিনেমার বিশেষ এক অংশে একটা ব্যাঙ্ক ডাকাতি হবে। যে ডাকাতির পুরোভাগে নেতৃত্ব দেবেন শাহরুখ খান। অনেকটা 'মানি হাইস্ট' এর প্রফেসরের মতন দায়িত্ব তাঁর। আবার এই ডাকাতদের ধরার জন্যে যে পুলিশবাহিনী আসবে, তাদেরও নেতৃত্বও দেবেন শাহরুখ খান! হ্যাঁ, সিনেমায় ডাবল রোলেই দেখা যাবে তাকে! সর্পও তিনি। ওঝাও তিনি। 

প্রফেসর 'শাহরুখ খান!' 

যদিও শাহরুখ খানের 'রেড চিলিস' এর আগেও 'মানি হাইস্ট' এর হিন্দি অ্যাডাপ্টেশন এর কাজ শুরু করেছিলো। স্ক্রিপ্ট রাইটিং এর কাজ কিছুটা করাও হয়েছিলো। কিন্তু শেষপর্যন্ত নানা কারণে সেই উদ্যোগ আর আলোর মুখ দেখেনি। তবে প্রত্যাশা করাই যায়, এবার হয়তো সে আক্ষেপ ঘুচবে। আর মোদ্দাকথা এবং আপ্তবাক্য এটুকুই, এই সিনেমার সাথে মানি হাইস্ট এর মিল থাকুক আর না থাকুক, সিনেমাটা যেন গ্রহনযোগ্যতায় উতরে যায়। সুপারস্টার কিং খানের ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতন যেন হ্যাটট্রিক ফ্লপ সিনেমা না আসে। তিনি যে আসলেই বলিউডের বাদশা, সেটা বোঝানোর জন্যে এই সিনেমাই যেন হয় মোক্ষম দাওয়াই।

শুভকামনা। 


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা