'রাধে' সিনেমার স্বত্ব কেনার জন্য নাকি ওটিটি প্ল্যাটফর্মগুলো টাকার বস্তা নিয়ে নেমে পড়েছিল। কিন্ত সালমান অটল থেকেছেন নিজের জায়গায়, সিনেমা হলেই তিনি রাধে মুক্তি দেবেন...

সালমান খানের সিনেমা মানেই থিয়েটার-সিনেপ্লেক্সে দর্শকের ভিড়, বাইরে ঝোলানো হাউজফুল বোর্ড, হল মালিকদের মুখে হাসি, ডিস্ট্রিবিউটরের পকেট ভারী। করোনাকালটা সিনেমাপাড়ার জন্য অভিশাপ হয়ে এসেছে, সিনেমা শিল্পের সঙ্গে জড়িত লোকজন ভুগেছেন আর্থিকভাবে। একে তো সিনেমা হল বন্ধ, তার ওপর ওটিটি মাধ্যমের রাজত্ব- সব মিলিয়ে বড্ড বিপাকে পড়েছিল সিনেমাপাড়া। তবে সালমান খানের নতুন সিনেমা রাধে'র মুক্তির ঘোষণাটি যেন স্বস্তির সুবাস বয়ে এনেছে গোটা বলিউড, তথা ভারতীয় চলচ্চিত্রাঙ্গনে। ঈদ উপলক্ষ্যে আগামী ১৩ই মে সিনেমা হলে মুক্তি দেয়া হবে রাধে: ইয়োর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই। 

সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন প্রভু দেবা। ২০০৯ সালে তার পরিচালিত ওয়ান্টেড সিনেমায় অভিনয় করেই দীর্ঘ ব্যর্থতার খরা কাটিয়েছিলেন সালমান। রাধে ছবিটি ২০১৭ সালের কোরিয়ার ছবি ‘দ্য আউটলজ’-এর হিন্দি রিমেক হবে বলে জানা গেছে। সিনেমার চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন বিজয় মৌর্য্য, যিনি এর আগে গালি বয়, চিল্লার পার্টির মতো সিনেমায় স্ক্রিপ্ট লিখেছিলেন। অ্যাকশনের কাজ করেছে কোরিয়ান একটি দল, তাদের সঙ্গে ছিলেন কেজিএফ সিনেমার অ্যাকশন মাস্টার আনবু-আরিভু। সালমান ছাড়াও এই সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন রণদীপ হুদা, জ্যাকি শ্রফ, দিশা পাটানি সহ আরও অনেকে। মিউজিক ডিরেক্টর হিসেবে আছেন হিমেশ রেশমিয়া। 

১৩ই মে মুক্তি পাবে রাধে

করোনার আবহে ওটিটি প্ল্যাটফর্মগুলিতে অনেক সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। এমনকি একাধিক তারকাখচিত ছবিও রয়েছে সেই তালিকায়। সিনেমা হলে মুক্তি পেলে হয়তো ভালই মুনাফা হতো প্রযোজকদের। কিন্তু এই দুর্দিনে কোনোরকম ঝুঁকি না নিয়ে অনেকেই এক্ষেত্রে ভরসা রেখেছেন ওয়েব প্ল্যাটফর্মের ওপর। যার কারণে সিঁদুরে মেঘ দেখছেন হল মালিকেরা। কিন্ত সালমান খান এখানে ব্যতিক্রম। তিনি শুরু থেকেই বলে এসেছেন, রাধে মুক্তি পাবে সিনেমা হলে, ওটিটি প্ল্যাটফর্মে নয়। নিজের দেয়া কথা রেখেছেন ভাইজান। 

শোনা যাচ্ছিল, রাধে সিনেমার স্বত্ব কেনার জন্য নাকি ওটিটি প্ল্যাটফর্মগুলোর তরফ থেকে দুই থেকে তিনশো কোটি রূপি পর্যন্ত সালমানকে অফার করা হয়েছিল, টাকার বস্তা নিয়ে পেছনে নেমে পড়েছিলেন প্রতিনিধিরা। কিন্ত সালমান অটল থেকেছেন নিজের জায়গায়। তিনি জানেন, তার অডিয়েন্স সিনেমা হলে এসেই সিনেমা দেখতে পছন্দ করে। তাছাড়া হল মালিকদের লাভ-লোকসানের ব্যাপারটাও তিনি ভেবেছেন। সালমান আজ যে জায়গায় আছেন, তার পেছনে দর্শক, সিনেমা হল, হল মালিক- সবারই তো অবদান আছে। সেটাকে তিনি অস্বীকার করেন কী করে? 


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা