৭ জন বীরশ্রেষ্ঠকে পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে পারেন নিরব, সাইমন, সিয়াম, রোশান, শরিফুল রাজ, অপূর্বরা। এর মধ্যে বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমানের চরিত্রে অভিনয় করার জোর সম্ভাবনা আছে সিয়ামের...

১৯৭১, বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ, ৭ বীরশ্রেষ্ঠ, ২০২১। দীর্ঘ এই সময়ে বাংলাদেশী সিনেমাপ্রেমিদের বড় আক্ষেপের নাম অডিও-ভ্যিজুয়াল মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের অকুতোভয় নায়ক বীরশ্রেষ্ঠদের উপস্থিতি। সর্বশেষ ২০০৭ সালে বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মতিউর রহমানের জীবনী ও আত্মত্যাগের কাহিনী নিয়ে নির্মাণ করা হয়  “অস্তিত্বে আমার দেশ” - যেটি ছিলো খিজির হায়াত খান পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র। এছাড়াও শোনা গিয়েছিলো এফ আই মানিক এর “সেভেন হিরোজ অফ দ্য নেশন” এর পরিকল্পনার কথা। 

এরপর  দিন গড়িয়েছে, মাস গেছে, বছর ঘুরে এসেছে নতুন বছর- রূপালী পর্দায় তীব্র ভাবে সত্যিকার জীবনের নায়কেরা অনুপস্থিত থেকে যান। মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য ৭ জনকে শহীদ মুক্তিযোদ্ধাকে বীরশ্রেষ্ঠ খেতাব দেওয়া হয়েছে, তারা হলেন- মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর, হামিদুর রহমান, মোস্তফা কামাল, মোহাম্মদ রুহুল আমিন, মতিউর রহমান, মুন্সি আব্দুর রউফ ও নূর মোহাম্মদ শেখ। তাদেরকে নিয়ে বিভিন্ন সময়ে বিচ্ছিন্নভাবে প্রামাণ্যচিত্র ও নাটক হলেও এখন পর্যন্ত হয়নি  কোনো পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা ।

বিগত কয়েক মাসে দেশের চলচ্চিত্র পাড়ায় গুঞ্জন উঠেছে, সাত বীরশ্রেষ্ঠদের জীবনী নিয়ে নির্মিত হতে যাচ্ছে পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা 'রণ যোদ্ধা'। সাতজন পরিচালক আর সাতজন আলাদা নায়কের এই সিনেমা প্রযোজনা করবে বি হ্যাপি এন্টারটেইনমেন্ট ও পূর্ণ ফিল্মস। তবে এই ব্যাপারে এখনো আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা আসেনি। এই ছবিতে মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীরের চরিত্রে ঢালিউডের জনপ্রিয় তারকা শাকিব খানের অভিনয় করা নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। শাকিব খান অবশ্য এই ছবির সঙ্গে তার সংশ্লিষ্টতার কথা উড়িয়ে দিয়ে বলেছেন- 

‘আমার সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে একবারই প্রস্তাব এসেছিল। আমার অফিসে এসে কথা বলেছেন। সবকিছু শুনে আমি সন্তুষ্ট হতে পারিনি। তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি ছবিটি না করার। এত বড় একটা বিষয় নিয়ে কাজ করতে হলে অনেক প্রস্তুতির দরকার। অনেক বেশি হোমওয়ার্ক করতে হয়। কারণ, বীরশ্রেষ্ঠদের নিয়ে ছবির ক্যানভাস অনেক বড়।’ 

সর্বশেষ অনন্য মামুন পরিচালিত ‘নবাব এলএলবি’ শিরোনামের সিনেমায় প্রশংসিত হয়েছে শাকিব খানের অভিনয়শৈলি। একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পাওয়া এই চলচ্চিত্রে শাকিবের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন মাহিয়া মাহি। 

অন্যদিকে, 'রণ যোদ্ধা'র ৭ পরিচালকের একজন সাকিব সনেট জানান, "শাকিব ভাইয়ের বিষয়টা যে কারা ছড়িয়েছে, এটা আমরাও বুঝতে পারছি না। তাঁর সঙ্গে আমাদের শুধু এক দিনই কথা হয়েছে। তিনি কোনো কিছুই চূড়ান্ত করেননি। এই মাসে ছবির মহরত করার পরিকল্পনা আছে। তার আগেই অভিনয়শিল্পীদের তালিকাটা চূড়ান্ত করতে পারব।"

৭ বীরশ্রেষ্ঠদের যারা পর্দায় ফুটিয়ে তুলবেন তাদের মধ্যে শোনা যাচ্ছে নিরব, সাইমন, সিয়াম, রোশান, শরিফুল রাজ, অপূর্ব প্রমুখ শিল্পীদের নাম। এর মধ্যে বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমানের চরিত্রে অভিনয় করার জোর সম্ভাবনা আছে 'পোড়ামন ২' ও 'দহন' খ্যাত সিয়াম আহমেদের। বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমানের অংশটুকুন নির্মাণ করতে পারেন পরিচালক রাশিদ পলাশ। 

তবে এখন পর্যন্ত ছবিতে অভিনয়শিল্পী হিসেবে ববির নামটি চূড়ান্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্মাতা সাকিব সনেট। চলচ্চিত্রে বীরশ্রেষ্ঠদের চিত্রায়ন ছাড়াও বীরাঙ্গনার একটি চরিত্র রয়েছে বলে জানা গেছে, যেটি ফুটিয়ে তুলবেন ববি। ববির সর্বশেষ উল্লেখযোগ্য রিলিজের মধ্যে রয়েছে শাকিব খানের বিপরীতে ‘নোলক’। ছবিটি ২০১৯ সালের ঈদুল আজহায় মুক্তি পায়। সাকিব সনেট আর রাশিদ পলাশ ছাড়াও ছবিটিতে পরিচালনার দায়িত্বে থাকবেন সানী সানোয়ার, কাওসার মাহমুদ, গৌতম কৈরী, কামরুল ইসলাম রিফাত ও রাইসুল ইসলাম এর মতো গুণী নির্মাতারা। 

করোনা পরবর্তী সময়ে চলচ্চিত্র, চলচ্চিত্র প্রদর্শন আর উপভোগে এসেছে আমূল পরিবর্তন। পরিবর্তিত এই সময়ে নির্মাতারা বাংলাদেশের ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ নায়কদের গল্প সেলুলয়েডের মাধ্যমে দর্শককে জানানোর কথা ভাবছেন- এটি আশার কথা। সাধারণ দর্শক যুদ্ধের সিনেমা বলতে হলিউডকেই চেনে, আর হলিউডের রয়েছে বিশাল ক্যানভাসের যুদ্ধভিত্তিক সব চলচ্চিত্র। আমরাও কি পারবো এমন  সিনেমা নির্মাণ করতে যেটি আমাদের ইতিহাস আর ঐতিহ্য কে তুলে ধরবে? সময়ই দেবে সেই প্রশ্নের উত্তর...


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা