দেশের প্রথম রুপান্তরিত বা ট্রান্সজেন্ডার নারীর সংবাদপাঠিকা তাসনুভা আনান শিশিরকে এখন অনেকেই চেনেন। গোয়েন্দা বিভাগের এক কর্মকর্তার চরিত্রে তিনি অভিনয় করেছেন অনন্য মামুনের 'কসাই' চলচ্চিত্রে। দৃশ্যধারন শেষ, চলছে পোস্ট-প্রোডাকশনের কাজ...

দেশের প্রথম রুপান্তরিত বা ট্রান্সজেন্ডার নারীর সংবাদপাঠিকা হওয়ার কথা সবাই জানেন- তার নাম তাসনুভা আনান শিশির। সংবাদ-পাঠিকার পাশাপাশি নৃত্যশিল্পী এবং মানবাধিকারকর্মী হিসাবে পরিচিত তাসনুভা আনান শিশির গোয়েন্দা বিভাগের এক কর্মকর্তার চরিত্রে অভিনয় করেছেন অনন্য মামুনের 'কসাই' চলচ্চিত্রে। দৃশ্যধারন শেষ, চলছে পোস্ট-প্রোডাকশনের কাজ। চলচ্চিত্র নিয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত তাসনুভা জানান "অনেকদিন ধরেই মামুন ভাইয়ের সঙ্গে কাজের ইচ্ছা ছিল। `কসাই’ ছবিতে গোয়েন্দা কর্মকর্তা তিশার চরিত্রে কাজের সুযোগ পেয়েছি। চরিত্রটা যথেষ্ট চ্যালেঞ্জিং। চরিত্রটাকে বাস্তবে রূপদানের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি।"

অন্যদিকে একটি বার্তা সংস্থাকে পরিচালক অনন্য মামুন জানান, “আমি তাকে একজন মানুষ হিসেবে আমার ছবিতে নিয়েছি। আমার মনে হয়েছে একটা মানুষের সিনেমায় কাজের আগ্রহ আছে- সেটা দেখেই আমি নিয়েছি।” ‘কসাই’ একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা যেটি মার্চে মুক্তি পেতে পারে। সিনেমাহল ছাড়াও স্ট্রিমিং সাইটগুলোতে মুক্তি দেয়া হতে পারে এই চলচ্চিত্র। অনন্য মামুন আরো জানান যে, এই সিনেমার প্লট পুরোপুরি সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত।  

সিনেমার জগতে তাসনুভার নাম নতুন শোনা গেলেও থিয়েটারের সাথে যুক্ত আছেন সেই ২০০৬ সাল থেকে। বর্তমানে নাটকের দল বটতলায় কাজ করছেন। অনন্য মামুনের সিনেমা ছাড়াও সাইদ শাহরিয়ারের ‘গোল’ ছবিতে কাজ করছেন তাসনুভা যেখানে ফুটবল দলের কোচ চরিত্রে দেখা যাবে অদম্য এই শিল্পীকে। চলচ্চিত্রে তার পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, “গল্পনির্ভর ছবিতে বৈচিত্রময় চরিত্রে কাজ করতে চাই।”

তাসনুভা আনান শিশির

বর্তমানে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে পাবলিক হেলথে স্নাতকোত্তর পড়ছেন শিশির। বেসরকারি চ্যানেল বৈশাখী টেলিভিশনে ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবসে দেশের প্রথম রূপান্তরিত নারী হিসেবে সংবাদ পাঠ করবেন তিনি৷ তবে তার সবচেয়ে বড় পরিচয় তিনি একজন মানুষ। এই ব্যাপারে আলোকপাত করে চ্যানেলটির উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক টিপু আলম মিলন বার্তা সংস্থা ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আমরা আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, বৈশাখী টেলিভিশন স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর এই বছর, স্বাধীনতার মাস মার্চে নারী দিবস উদযাপনের আগে সংবাদ বিভাগ ও নাটকে দুই জন ট্রান্সজেন্ডার নারীকে যুক্ত করেছে৷ দেশের মানুষ এই প্রথম একজন ট্রান্সজেন্ডারকে পেশাদার সংবাদ বুলেটিনে পাঠ করতে দেখবেন।’’ 

সবার জন্য বাসযোগ্য ও বৈষম্যহীন বাংলাদেশ গড়তে নি:সন্দেহে এই উদ্যোগ একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে। 


শেয়ারঃ


এই বিভাগের আরও লেখা